ঢাকা,  বৃহস্পতিবার  ১৩ জুন ২০২৪

নিউজ জার্নাল ২৪ :: News Journal 24

আমন ক্ষেতে ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি, ফসল রক্ষায় পাহারা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১১:২২, ৯ অক্টোবর ২০২২

আমন ক্ষেতে ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি, ফসল রক্ষায় পাহারা

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলায় আমনের মাঠে ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি বসায় ধানতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। পাখি তাড়াতে দিনভর জমি পাহাড়া দিচ্ছেন কৃষকরা। কেউ কেউ জমির চারদিকে জাল পেতে রেখেও ফসল রক্ষার চেষ্টা করছেন।

জানা গেছে, লাখাই উপজেলায় এবার বন্যার কারণে রোপা আমন চাষে কিছুটা দেরি হয়েছে। এজন্য কৃষকরা কম সময়ে ফসল তুলতে আগাম জাতের ধান চাষ করেছেন। এসব জমির ধান এখন আধা পাকা, পাকতে শুরু হয়েছে কোথাও কোথাও।
 
এদিকে জমিগুলোতে দিনভর ঝাঁকে ঝাঁকে চড়ুই, বাবুইসহ নানা জাতের পাখি এসে বসছে, পাখির দল ধান কিছুটা খেয়ে যাচ্ছে, ধানগাছ ভেঙে ক্ষতিগ্রস্তও করছে।
 
উপজেলার মোড়াকরি গ্রামের কয়েকজন কৃষকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এ গ্রামের হাওরে এবার শতাধিক হেক্টর জমিততে আগাম জাতের রোপা আমন চাষ হয়েছে। তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার বেশি পরিমাণ পাখি এসে বসায় ধানের ক্ষতি হচ্ছে।
 
বিভিন্ন ধানেেত গিয়ে দেখা যায়, ফসল রক্ষায় কৃষকরা নানা পদ্ধতি অবলম্ব করছেন। কেউ কেউ জমির চারদিকে জাল দিয়ে ঘেরাও করেছেন, কেউ কেউ টিনের সাহায্যে উচ্চ শব্দ সৃষ্টি করে পাখি তাড়াচ্ছেন, অনেক আবার দিনভর জমিতে বসে পাহারা দিচ্ছেন।
 
মোড়াকড়ি গ্রামের শাহাবুদ্দিন, আরব আলী, এনু মিয়া ও গোলাপ মিয়া জানান, জমির ধান পাকতে শুরু করেছে। কিন্তু গত এক সপ্তাহ ধরে ঝাঁকে ঝাঁকে চড়ুই ও বাবুই পাখি জমিতে বসে ধান খেয়ে যাচ্ছে। অনেক জায়গায় ধান গাছ ভেঙে পড়ে মরে যাচ্ছে। ধান কাটার আগ পর্যন্ত এমন চলতে থাকলে ব্যাপকভাবে ক্ষতি হয়ে যাবে। তাই বিভিন্ন পদ্ধতি অবলম্বনসহ দিনভর জমি পাহাড়া দেওয়া হচ্ছে।
 
এ বিষয়ে লাখাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শাকিল খন্দকার বলেন, পাখিদের খাদ্য সংকট থাকায় তারা আগাম জাতের রোপা আমনের জমিতে এসে বসছে। এ অবস্থা মোকাবিলার জন্য নেট জাল দিয়ে জমি মুড়িয়ে রাখার জন্য কৃষকদের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

 

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন